Friday, November 12, 2010

মামা বাড়ির আবদার!

আমাদের একেকজনের মামা বাড়ি একেক জায়গায় কিন্তু আমাদের কমন এক মামা আছেন, জাতীয় মামা। বরং আমরা গর্ব করে বলতে পারি 'বিশ্বমামা'! এই মামা ভাগিনাদের পুষ্টিকর দই খাওয়ান, পুষ্টিকর খাওয়ার পানি খাওয়ান, অচিরেই পুষ্টিকর জুতা খাওয়াবেন। ভুল লিখলাম, পুষ্টিকর জুতা খাওয়াবেন না, বানাবেন, এডিডাসকে নিয়ে। আশা করছি, মামা আমাদেরকে পুষ্টিকর বাতাসও খাওয়াবেন [১]

গ্রাম্য মামা বললে শুনতে ভালো শোনায় না, তাই 'গ্রামীনমামা'। আমার মামা তোমার মামা, সবার মামা ইউনূস মামা। ইউনূস মামা গ্রামীন ব্যাংক প্রতিষ্ঠার পর, ২০০০ সাল থেকে তাঁর প্রতিষ্ঠান কোন কর দেয়নি। মামা ভাগিনাদের জন্য কত্তো কিছু করছেন তাঁর কাছে কর চাওয়াটা অন্যায়ের পর্যায়ে পড়ে। ২০১০ সালের ৩১ ডিসেম্বরে মামার এই করমুক্ত সুযোগ শেষ হচ্ছে। এ অন্যায়-এ অন্যায়! কেয়ামতের আগ পর্যন্ত এই করমুক্ত সুযোগ না রাখাটা অনুচিত হয়েছে। বড়ো অন্যায় হয়ে গেছে!
এখন ইউনূস মামা আবেদন করেছেন আগামীতেও যেন তাঁর প্রতিষ্ঠানকে করমুক্ত রাখা হয়। এই নিয়ে তিনি 'লম্ফা-লম্ফা' পত্র লিখেছেন।
মামার আবদার বলে কথা। শিরোনামটা 'মামা বাড়ির আবদার' না-হয়ে আসলে হওয়া প্রয়োজন ছিল, মামার আবদার।

মামার কথাবার্তা শুনে প্রায়শ মনে হয় তিনি দানছত্র খুলে বসে আছেন- তাঁর প্রতিষ্ঠান অলাভজনক একটা প্রতিষ্ঠান। অফিস-টফিস চালাবার জন্য যৎসামান্য সুদ নামের লাভ নিলে এতে অন্যদের গাত্রদাহ হবে কেন? এই সুদের হার ৩০ থেকে ৪০ পার্সেন্ট হলেই বা কী! তিনি যে দারিদ্র বিমোচন করছেন! দেশ থেকে ঝেটিয়ে দারিদ্র দূর করে দিচ্ছেন। মহান এক ঝাড়ুদার!
অর্থমন্ত্রী অবশ্য বলছেন, 'ক্ষুদ্রঋণ দারিদ্র বিমোচনের উপায় নয়। ...এরা নিচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ সুদ। মহাজনদের চেয়ে অবশ্য এরা ভাল'।
কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেছেন, 'বর্তমানে অতি কৌশলে ক্ষুদ্রঋণে ফ্ল্যাট রেট বলে যে সুদ নেওয়া হচ্ছে বাস্তবে তা অনেক বেশি এবং গ্রাহকরা এদের এই ফাঁকিবাজি ধরতে পারেন না। কেউ কেউ ৩০ থেকে ৬০ শতাংশ সুদ নিচ্ছে'।

এখন সরকার ক্ষুদ্রঋণের নতুন নীতিমালা করতে যাচ্ছেন। নতুন নীতিমালায় ক্ষুদ্রঋণের সুদের হার করা হচ্ছে সর্বোচ্চ ২৭ পার্সেন্ট! ২৭ পার্সেন্ট!
আমি সরকারের কাছে সবিনয়ে জানতে চাই, এই দেশে ২৭ পার্সেন্ট সুদ দিয়ে কোন ব্যবসায় লাভ করা যায়? আমি ওই ব্যবসার হদিস জানতে চাই। ওই ব্যবসা করার গোপন ইচ্ছা প্রকাশ করি।
না-না, আমি জানতে চাই না কারণ মামা মনে বড়ো কষ্ট পাবেন। আমি মামার মনে কষ্ট দিতে পারব না। না-না-না। আহা, তিনি যে আমাদের মামা, জাতীয় মামা। বিশ্বমামা!

সহায়ক লিংক:
১. ওই আসে মহাপুরুষ: http://www.ali-mahmed.com/2010/11/blog-post_04.html      

No comments: