Search

Sunday, July 17, 2022

হাসিবোমা!

Moin Akter নাকি ২০১১ সালে মারা গেছেন। কে বলে মইন আক্তাররা মারা যান এরা কেবল পারফর্ম করা বন্ধ করে দেন! কেন? তাঁর খুশি! ২০১১, ২০২১, ২০৩১...এঁদের মৃত্যু নেই। মৃত্যু এদের গা ছুঁয়ে বলার সাহস পায় না, পাগল রে, তোকে ছুঁয়ে দিলাম।

সারা দেশে জ্বরের প্রকোপ। বলতে গেলে জ্বরে কাঁপছে দেশ। কভিডের অন্য একটা ভেরিয়েন্ট কি না কে জানে! আমাদের দেশের বড়-বড় মানুষদের এই নিয়ে মাথা ঘামাবার সময় কোথায়- তারা বড়-বড় কাজ নিয়ে ব্যস্ত। এই যেমন, আমাদের এক এম, পি সাহেব বিশাল এক কাজ করেছেন- এক কলেজের অধ্যক্ষকে ১৫ মিনিট ধরে পিটিয়েছেন, অন্য অধ্যক্ষদের সামনে।

বড়-বড় কথা থাকুক, ছোট-ছোট কথা নিয়ে থাকি। 'Loose Talk' নাম দিয়ে শত-শত পর্বে (৩০০-এর উপর সম্ভবত) মইন আক্তারের সঙ্গে Anwar Maqsood- আহা এ এক যুগলবন্দী! আর মইন আক্তার যেন একেকটা চরিত্রে পানির মত মিশে যান। কী অনবদ্য অভিনয়!

এমনিতে ভারত-পাকিস্তান আজন্মশত্রু কিন্তু এই একটি জায়গায় এসে বিচিত্র এক অভিজ্ঞতা হলো। মইন আক্তারের অধিকাংশ গুণমুদ্ধ ভারতের এবং এখন পর্যন্ত একটাও বিরূপ মন্তব্য কোথাও দেখলাম না। যা-ই মন্তব্য আছে তা একজন মানুষকে অমরত্ব এনে দেওয়ার জন্য যথেষ্ঠ! 

যাই হোক, ১০৩ ডিগ্রি জ্বর নিয়ে মইন আক্তারের অভিনয় দেখছি আর হাসতে-হাসতে মাটিতে গড়াগড়ি খাচ্ছি। দরদর করে চোখ দিয়ে পানি বেরুচ্ছে! কী এক অভিজ্ঞতা। ভাগ্যিস, হিন্দি মুভি দেখার কল্যাণে ভাষাটা অনেকখানি বুঝতে পেরেছি। তারপরও 'ওয়াকফা', 'যুদ্ধেযুহাদ', 'সাদার', 'তাবিল' এমন অনেক শব্দ বুঝতে পারিনি কিন্তু তাতে হাসির কোন ঘাটতি হয়নি।

১.

 ২.

৩.


৪.


৫.


৬.


৭.

৮.


৯.


1 comment:

রায়হান said...

ওয়াকফা সম্ভবত বিজ্ঞাপন বিরতি। সাদির