Search

Loading...

Sunday, August 15, 2010

এমন দেশটি কোথাও খুঁজে পাবে নাকো তুমি: ২

একটা লেখা লিখেছিলাম, এমন দেশটি কোথাও খুঁজে পাবে নাকো তুমি। লেখাটার মূল বক্তব্য ছিল, এই দেশটার মত বিচিত্র দেশ আর কোথাও নাই। দুনিয়ার যতসব আজব কাজগুলো না করে আমরা আরাম পাই না রমজানে, সংযমের নমুনা হিসাবে আমরা শুরু করে দেই সৃষ্টিছাড়া সমস্ত কাজ, সীমাহীন অন্যায় [১]

সত্যিই এ বড়ো বিচিত্র দেশ। ১৫ আগস্ট খালেদা জিয়া ঘটা করে পালন করেন নিজের জন্মদিন! এটা বলার অপেক্ষা রাখে না তাঁর জন্মদিন এই দিনে না। এটা প্রমাণ করা কঠিন কোন কাজ না। তবুও তিনি পালন করছেন সাড়ম্বরে। কেন? ১৫ আগস্ট প্রয়াত একজন রাষ্ট্রপতি এবং তাঁর পরিবারের লোকজনের মৃত্যুদিবস বলে? এঁদের প্রতি তাঁর ঘৃণা থেকে? একজনের প্রতি ঘৃণা-অবজ্ঞা-তাচ্ছিল্য থাকলেই কি এমন একজন নেতা যিনি এই দেশটা চালাবার দুই চালকের একজন, তিনি এমন অমানবিক কাজ করতে পারেন! আমি শিউরে উঠি, চোখ বন্ধ করে ফেলি।

আমার কাছে ছবিটা স্রেফ অশ্লীল মনে হচ্ছে। কে বলেছে, নগ্ন দেহই কেবল অশ্লীল?
একজন নেতার পক্ষে কেমন করে এটা সম্ভব? আমরা আবার ঘটা করে এই মানুষটাকে মাথায় তুলে রাখি, তাঁর জন্য অকাতরে প্রাণ বিলিয়ে দেই! 
আমি মনে করি, এই অভব্যতার সমাপ্তি হওয়া প্রয়োজন। খালেদা জিয়া প্রমাণ করুন, তাঁর জন্মদিন ১৫ আগস্ট। প্রয়োজনে এটার জন্য হাইকোর্টের শরণাপন্ন হওয়া যেতে পারে। কুমিরের ছানার মত বছরের পর বছর ধরে একই কু-দৃশ্য দেখতে ভাল লাগে না। একজন পাঠক চমৎকার একটা কথা বলেছেন, খালেদা জিয়া তাঁর ছেলে, নাতিপুতির জন্মদিন পালন না করে নিজেরটা নিয়ে অস্থির হয়ে থাকেন। ( Faysal said, "...নিজের ছেলে ও নাতি নাতনিদের জন্মদিন নিয়েও যিনি ও যার দল আগ্রহ দেখান না...")
আসলেই তো! আমাদের দেশে ৬৬ বছরের একজন ভদ্রমহিলা ঘটা করে, ৬৬ পাউন্ডের ৪টা কেক কেটে জন্মদিন উদযাপন করেন। এটা আবার আমাদের মিডিয়া ফলাও করে ছাপায়ও!


পাশাপাশি যে খেলা শুরু হয় তা দেখে হাঁ হয়ে থাকি। কেমন করে বিশ্বাস করা যায় প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এই সব কথা বলতে পারেন?
একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের বক্তব্য এগুলো! এইচ টি ইমাম বলছেন, "...এই ইসলামের প্রবর্তক ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান..."।
এঁরা কেন এই সব কথা বলেন, এঁরা কি কখনও বুঝতে চেষ্টা করেছেন এই দেশের লোকজনের কাছে এমন বক্তব্যের গ্রহনযোগ্যতা কতটুকু?
আমার এখনও বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে, একজন দায়িত্বশীল শিক্ষিত মানুষ এমনটা বলতে পারেন!

এই বেচারাকে দোষ দিয়ে লাভ কী! একজন মানুষকে কোন পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হয় এর নমুনা হচ্ছে, প্রথম আলো (১৫ আগস্ট ২০১০)। ভাল-ভাল! তা মশিহুর রহমান [২] নামের এই সব মানুষদের কি সাগরে ফেলে দিতে হবে?

ভাল কথা, ১৫ আগস্ট ছুটি না রাখলে কী এমন ক্ষতি হতো? শুক্র-শনি বন্ধ, এর সঙ্গে যোগ হলো আজ রবিবার। অন্তত রবিবারের পূর্বে দুই দিন ছুটি এটা বিবেচনা করে আজ ছুটিটা বাতিল করার ভাবনা এলে এটা হতো অসাধারণ একটা উদাহরণ। এই দেশের জন্য হয়ে থাকত একটা সু-উদাহরণ।এই দলের মুকুটে যোগ হতো আরেকটি পালক।

আরেকটা বিষয় আমার মাথায় আসে না সেটা হচ্ছে, 'হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি' এই বিষয়টা বিবিসির মাথায় এলো কেমন করে? এ এক বিস্ময়, এ এক 'কাংগা'। কাংগার অর্থ আমি জানি না, ভাষা খুঁজে না-পাওয়ার জন্য এই দশা, খেই হারিয়ে ফেলেছি।

যে কারও, 'দশকের শ্রেষ্ঠ বাঙালি' এটা নিয়েই তো হিমশিম খাওয়ার কথা, 'শত বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি' এটা ভাবাটাও দুঃসাহস; সেখানে হাজার বছর...? আমাদের কল্পনাকেও ছাড়িয়ে যায়!

বিবিসি, সাহেব-মিডিয়া বলে কথা! এরা চুরি-চামারি করলেও সেটা হয় মিসটেক, তাও আজ পর্যন্ত এরা কোথাও ভুল স্বীকার করেছে বলে তো শুনিনি...। মুসা ইব্রাহিমের সাক্ষাৎকার নিয়ে কী খেলাটাই না এরা খেলল [৩] । বলিহারি বটে, কত বুদ্ধি ঘটে!
হালে জনাব শাহনূর নামের একজন বিবিসির বিরুদ্ধে কঠিন একটা অভিযোগ এনেছেন, সূত্র উল্লেখ না-করে ছবির ব্যবহার করা, প্রকারান্তরে যা চুরিরই নামান্তর। বিবিসির সাইটে গিয়ে আমি দেখেছি পরে এরা সংশোধন করেছেন।

অন্য একজন পাঠকের কঠিন একটা প্রশ্ন ছিল, "Agni ( হবে apni) ki bolte chan tini ki hajar bosorer sresto bangale na?"

বিশ্বাস করব না কেন, করি! বিবিসি নামের একটা মিডিয়া একটা জরিপ করেছিল, সেই জরিপের ফসল এটা। যদিও বিবিসির এই উদ্ভটসম জরিপের বিষয়বস্তু আমার বোধগম্য হয় না যেটা আমি পূর্বেই উল্লেখ করেছি। দশক না, শতক না, এক ধাক্কায় হাজার বছর। বেশ, মেনে নিলাম কিন্তু কখনও এই প্রসঙ্গ আসলে অবশ্যই এটা উল্লেখ করতে হবে, বিবিসির জরিপমতে, হাজার বছরের...।
সৈয়দ শামসুল হকের মত মানুষ যখন আলাদা ভাব ধরে চিবিয়ে চিবিয়ে বলেন, 'হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি' তখন কেবল বলার থাকে, মাছের পচন শুরু হয় তার মাথা থেকে, মানুষের...। 

*ছবি, সৌজন্যে: প্রথম আলো, গুগল , সচলায়তন 

সহায়ক লিংক:
১. এমন দেশটি কোথাও খুঁজে, ১: http://www.ali-mahmed.com/2009/08/blog-post_30.html 
২. মশিহুর রহমান: http://www.ali-mahmed.com/2009/10/blog-post_06.html 
৩. বিবিসি: http://www.ali-mahmed.com/2010/05/blog-post_27.html

6 comments:

Anonymous said...

শুভ,
ডয়েচভেলে সেরা ব্লগার নির্বাচিত হয়েছেন দেখে মনে পড়লো, এক সময় আপনার পোস্টগুলো খুব আগ্রহ নিয়ে পড়তাম! এখন ব্লগস্পটে চলে এসেছেন, তাই দেখা হয় না তেমন। অনেক ভালো থাকবেন!
মুগ্ধপাঠিকা (আস্ত একটা মেয়ে :))

Anonymous said...

Agni ki bolte chan tini ki hajar bosorer sresto bangale na?

।আলী মাহমেদ। said...

পুরনো স্মৃতি মনে করিয়ে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ। @Anonymous

Faysal said...

নি:সংকোচে এদেরকে ঘৃনা করুন, ঘৃনা করুন এদের চামার বাহিনীকে , যখন তারা টিভিতে এই বলে বিবৃতি দেয় যে , "জন্মদিন পালন হতে পারে , এটা নিয়ে গবেষনার তো কিছু দেখিনা" (সঠিক সুত্র দিতে পারছিনা)|
নিজের ছেলে ও নাতি নাতনিদের জন্মদিন নিয়েও যিনি ও যার দল আগ্রহ দেখান না , তার এমন বিশেষ দিনে জন্মদিন পালন ছোটলোকি করবার ছাড়া এর কি হতে পারে.....

'''''''''''''''''
যারা ঘৃনা করতে পারছেন না , তাদের বলি - নিরপেক্ষ থেকে ঘৃনা করা সহজ

।আলী মাহমেদ। said...

"...নিজের ছেলে ও নাতি নাতনিদের জন্মদিন নিয়েও যিনি ও যার দল আগ্রহ দেখান না ...।"
এটা ভাল একটা পয়েন্ট। আপনার এই পয়েন্টটা দেখি মূল পোস্টে জুড়ে দেব। @Faysal

।আলী মাহমেদ। said...

"Agni ki bolte chan tini ki hajar bosorer sresto bangale na?"
আপনার এই মন্তব্যের উত্তর দিতে গেলে অনেক কথা বলতে হয়। আমি পোস্টে এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে আরও কিছু লেখা যোগ করব। দয়া করে চোখ বুলিয়ে নেবেন। @Anonymous