Friday, June 29, 2007

সম্পাদক সাহেব, থাকা- খাওয়া ফ্রি!

২৪.১২.০১ প্রথম আলো একটি বিশেষ ক্রোড়পত্র বের করে। বিশ্বঅলি শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারীর (ক.) ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলে ১ পৃষ্টাব্যাপী বিজ্ঞাপন।

এতে বাণী দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী, বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা, মন্ত্রী এম মোরশেদ খান, মন্ত্রী আবদুল্লাহ-আল-নোমান, মন্ত্রী আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম এবং সংসদ সদস্য আলহাজ্ব রফিকুল আনোয়ার।

ড. আশরাফ সিদ্দিকী এবং ড. মুহম্মদ আবদুল মান্নান চৌধুরী, এই দুইজন পন্ডিত মিলে মাইজভান্ডারীর জীবন ইতিহাস লিখেছেন বিতং করে।
এই পন্ডিতদের কল্যাণেই আমরা জানলাম, ইঞ্জিনে পানি ভরে তেল ছাড়াই মাইজভান্ডারীর গাড়ি চলত। তেল ছাড়া ১৯২ মাইল কক্সবাজার পর্যন্ত গাড়ি চলেছে! …এমন কেরামতি নাকি হাজার পৃষ্ঠা লিখেও বর্ণনা করা সম্ভব না।

বুশ, ব্যাটা ভারী বেকুব! খামাখা তেলের জন্যে ইরাকের এতগুলো লোককে মারল! আমার এমন একটা গাড়ির খুব প্রয়োজন, আমি এই গাড়িটা কিনতে চাই; প্রয়োজনে ভিক্ষা করে হলেও। একবার কিনে ফেললেই তো কেল্ল­াফতে। পানি ভরব আর চালাব, কাউকে নিয়ে লং ড্রাইভে বেরিয়ে পড়ব। পানির অভাব হলে…। কী মজা-কী মজা!

আর প্রথম আলো, প্রথম শ্রেণীর দৈনিক! মুক্ত-শক্ত চিন্তার দৈনিক, এদের প্রতিদ্বন্দ্বী নাকি এরা নিজেরাই! টাকা পেলে প্রথম আলো যখন সব ধরনের বিজ্ঞাপনই ছাপায় তাহলে আমি একটা বিজ্ঞাপন দিতে চাই:
আমার বাংলা টাইপ খুব স্লো। একজন বাংলা টাইপ জানা লোক প্রয়োজন। প্রথম শ্রেণীর দৈনিকের সম্পাদক সাহেব ইচ্ছা করলে এ পদে যোগ দিতে পারেন, থাকা-খাওয়া ফ্রি...।