Sunday, June 10, 2018

হুজুগে বঙ্গাল!

আমাদের মহিলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সালমাকে নিয়ে পাকিস্তানি মিডিয়ায় যে কুৎসিত রসিকতা করা হয়েছিল তা অনেকেই হয়তো বিস্মৃত হয়েছেন। সেই কুৎসিত রসিকতার নামে যা করা হয়েছিল তা অমার্জনীয় এক অপরাধ! কারণ রসিকতাটা কেবল খেলা নিয়েই ছিল না সালমাকে অসুন্দর রূপে উপস্থাপন করে বিস্তর হাসাহাসি হয়েছিল। আজ আমি চোখ বন্ধ করলে স্পষ্ট দেখতে পাই এই মরদুদরা আজ হাসতে ভুলে যায়, ইয়েতে মাখামাখি হয়ে।

আজ সালমাদের ছোড়া জুতা দিগবিদিক কোথায় কোথায় পড়ছে তা ঠাউর করা মুশকিল। দু-একটা যে আমাদের গায়েও লাগেনি তা জোর দিয়ে বলা মুশকিল। আজকের এক পত্রিকায় পড়ছিলাম, “…সাকিব আল হাসানরা এশিয়া কাপের ফাইনালে খেললে ক্রিকেট উত্তাপে কাঁপে সারা দেশ। …আজও কি তেমন কিছু ঘটছে এ দেশে? বাসে বা অফিসে তর্কে আলোচনায় কি আজ সত্যিই আছেন সালমারা?...

এই ক্রীড়া প্রতিবেদক এখনও পুরোপুরি রোবট হয়ে ঘসে-ঘসে চোখের স্বপ্ন মুছে ফেলেননি বলেই হয়তো অসাধারণ এই লেখা দিয়ে শুরু করেছিলেন, সাধু-সাধু কিন্তু তিনি যে পত্রিকায় এটা লিখেছেন সেই পত্রিকায় এই খবরটা কিন্তু প্রথম পাতায় জায়গা করে উঠতে পারেনি। ছাপা হয়েছে খেলার পাতায়। অথচ এই পত্রিকাতেই পর-পর দুদিন ছাপা হয়েছিল ঢাউস আকারের বহুতল ভবনের ছবি। ঘটনা কী! দুই ‘ছাগ-বেকুব’ একটা ভবন রাঙিয়েছে আর্জেন্টিনার পতাকার রঙে আরেকটা ব্রাজিলের।
আহা কান্ড, আমার মত বেকুব পাঠককে খেলা কখন শুরু হবে এটা জানাবার তকলিফও এরা করেননি! 
এখন প্রবল আশা, সহসাই এই পত্রিকার সর্দার টাইপ উপ-সর্দার সালমাদের সঙ্গে ফটোসেশন করবেন, বিকশিত দন্তসহ।

আমাদের দেশের মিডিয়া চামচে করে কাচা গু খাওয়ালে আমরা পাঠক তাই খাব। মিডিয়া বলে কথা! এই মিডিয়াই উস্কে দেয় কোথাও কোন-এক ‘ছাগ-বেকুব’ এক কিলোমিটার লম্বা আর্জেন্টিনার পতাকা সেলাই মেশিনের উপর বসে প্রসব করেছে তো কোথাও ব্রাজিলের সোয়া কিলোমিটারর লম্বা পতাকা। এই মিডিয়াই ঘটা করে লিখে উস্কে দেয় ঈদের দেড় লাখ টাকা দামের লেহেঙ্গা, ঘটা করে শিরোনাম করে, শুরুতেই এলো ‘পদ্মাবতী’! ফ্যাশনের পাতার নামে বিস্তর ‘গু-কা’র সুলুক-সন্ধান।
ছবি ঋণ: www.banglatribune.com
মেয়েদের এশিয়া কাপে আজই আমাদের মেয়েরা ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়েছে অথচ এই লেখাটা যখন লিখছি তখন প্রধান এক ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রধান দ্বিতীয় তৃতীয় খবরে জায়গা করে নিতে ব্যর্থ হল এই মুঠো-স্বপ্ন…।
...
অাপডেট: (২০.০৬.১৮)
আজ প্রধানমন্ত্রী এই মেয়েদেরকে ডেকেছেন উৎসাহ-পুরস্কার দেওয়ার জন্য। অার মেয়েরা প্র্যাকটিস করতে যায় লক্করঝক্কর বাসে...।

ছবি এবং তথ্য ঋণ: www.thedailystar.net 



No comments: