Sunday, March 21, 2010

ডিজিটাল গ্রে-মেটার এবং বাঘের মিউমিউ

আচ্ছা, ডিজিটাল গ্রে-মেটার কেমন হয়? লোহা টাইপের? রঙ কি, রুপালি? যাদের মাথায় এই জিনিস থাকে এঁরা কি রোবট টাইপের নাকি পুরোপুরি রোবট? জানি না, জানার চেষ্টায় আছি। আমার ধারণা পুরোপুরি রোবট।

"ভয়েস ওভার প্রটোকল" (ভিওআইপি) অবৈধ কারবার সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে র‌্যাংকসটেলের সমস্ত কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়েছে এবং এ প্রতিষ্ঠানের তিন কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে।" (কালের কন্ঠ, ২০ মার্চ, ২০১০)

এর পূর্বে বন্ধ করা হয়েছে "ঢাকা ফোন" এবং "ওয়ার্ল্ডটেল"। এই তিন ফোন অপারেটরের গ্রাহক সংখ্যা প্রায় পৌনে ৪ লাখ! এই পৌনে ৪ লাখ গ্রাহকের সংযোগ পুরোপুরি বন্ধ। এঁরা আর ফোন করতে পারবেন না।
কে বোঝাবে এদের, একটা নাম্বার মানে কয়েক শ আনন্দ-বেদনার কাব্য। কতশত মানুষের কাছে একেকটা নাম্বার দেয়া আছে। কতশত ভয়াবহ দুর্যোগে একজন তার প্রিয়মানুষকে খুঁজে পাবে না। আরেক অপারেটরের নাম্বার যোগাড় করার আগ পর্যন্ত যে বেদনা-কান্ডগুলো ঘটবে এর দায় আমরা কার উপর চাপিয়ে দেব? উপরওয়ালার উপর? হায়াত আছিল না যার মাল হে লয়া গেছে। পৌনে চার লাখ গ্রাহকের মধ্যে মাত্র একটাই কি যথেষ্ঠ না। মাঝরাতে কেবল একজন মা যখন ফোনে ক্রমাগত হাহাকার করতে থাকবেন, খোকা-খোকা, তুই কই, বুকটা কেমুন ভার-ভার লাগতাছে।। খোকা শুনবে না তাঁর কথা, কারণ শোনার যন্ত্রটা নিষ্প্রাণ, শীতল!

এই প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মচারীদের কি হবে এই ফিজুল প্রশ্নে আর গেলাম না। তর্কের খাতিরে ধরে নিলাম এই তিন অপারেটর সত্যি সত্যি অবৈধ কারবারের সঙ্গে জড়িত ছিল, বেশ। এর জন্য এই কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে মামলা করত, মোটা অংকের জরিমানা করা যেত। কোম্পানি বাজেয়াপ্ত করুক, চালাবার দায়িত্ব সরকার নিয়ে নিক। কিন্তু তাই বলে গোটা কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়ার ভাবনা অন্তত কোন মানুষের মগজ থেকে বেরুতে পারে না, বেরুতে পারে কেবল রোবটের মাথা থেকে। মাথা মানে রূপালি রঙের ডিজিটাল গ্রে-মেটারে ভরপুর ফাইবারের একটা বাক্স আর কী!

এই পৌনে চার লাখ গ্রাহক নামের মানুষ কি দোষ করেছেন? এদের কি এটাই দোষ, এই মানুষগুলো বাংলাদেশ নামের একটা ডিজিটাল দেশে বসবাস করেন যে দেশ চালান ডিজিটাল নামের কিছু রোবট? পৃথিবীর অন্য কোন সভ্য দেশে এমন অসভ্য কান্ড ঘটতে পারে আমি বিশ্বাস করি না, আমার জানা নাই। আর এমনটা ঘটে থাকলে ওই দেশকে আমি সভ্য দেশ বলে স্বীকার করি না, সেটা সুইটজারল্যান্ড নাকি জাপান তাতে কিছুই যায় আসে না। এদের সঙ্গে মানুষখেকো জুলুদের সঙ্গে কোন তফাৎ নাই।

আমার যতটুকু মনে পড়ে, ইতিপূর্বে গ্রামীন ফোন একই অন্যায় করেছিল এবং গ্রামীন ফোনকে কয়েক শ কোটি টাকা জরিমানা করা হয়েছিল। ব্যস, এটুকুই!
এই তিন কোম্পানি যে অন্যায় করেছে বলে বলা হচ্ছে ঠিক একই অন্যায় যদি গ্রামীন ফোন করে তাহলে এই দেশের সরকার কি গ্রামীন ফোন বন্ধ করে দেবেন? মরিবার পূর্বে আমি কি শুনিতে পাইব বাঘ্রগর্জন?

সরকার গ্রামীন ফোন বন্ধ করে দেবেন!
হা হা হা! অনিবার্য কারণবশত লেখা এখানেই শেষ। কারণ এখুনি আমাকে এখান থেকে সরে যেতে হবে। আমার বেদম হাসি পাচ্ছে, বেদম! হা হা হা, হাসির চোটে কম্পিউটার কোথায় ছিটকে পড়ে চাখনাচুর-খানখান হবে এর কোন ঠিক ঠিকানা নেই।

No comments: