Monday, March 18, 2013

আনিসুজ্জামান: অতি সহজলভ্য!

আজ খালেদা জিয়াকে নিয়ে যারা এটা-সেটা বলছেন তাদের হয়তো জানা নেই, তিনি কেবল এই দেশেরই না, ভারতেরও গর্ব! এমন একজন মানুষ যখন বলেন, গণজাগরণ মঞ্চের সবাই নাস্তিক তখন এটা না-মেনে উপায় কী!

"খালেদা জিয়া শ্রেষ্ঠ বাঙালি", এই ঘোষণাটা দিয়েছিলেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। (সূত্র: প্রথম আলো, ২৩.০৬.০৫)
প্রথম আলো: ২৩.০৬.০৫

মুক্তধারা নামের একটি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান এর আয়োজক ছিল। শেরাটনের বলরুমের অনুষ্ঠানে ঘোষণাটি দিয়েছিলেন আমাদের আনিসুজ্জামান মহোদয়। শ্রেষ্ট বাংলাদেশি না, শ্রেষ্ঠ বাঙালি। সোজা কথা, ২৩ কোটি বাংলা ভাষাভাষীদের মধ্যে খালেদা জিয়াই শ্রেষ্ঠ বাঙালি। বাংলাদেশের কেউ দাঁড়াতে তো পারলেনই না, ভারত থেকেও কেউ না।

আমিও অমায়িক ভঙ্গিতে স্বীকার গেলুম, খালেদা জিয়া শ্রেষ্ঠ বাঙালি। কারণ আনিসুজ্জামানের মত বাতিওয়ালা মানুষ যেখানে বলে গেছেন খালেদা জিয়া শ্রেষ্ট বাঙালি সেখানে আমার মত সামান্য মানুষ দ্বিমত করবে , পাগল। আউট অভ কোশ্চেন।

অবশ্য সৈয়দ শামসুল হক দ্বিমত পোষণ করেছেন, "...মুক্তধারার জরিপে তথাকথিত 'শ্রেষ্ঠ বাঙালি দশজন'-এর নাম যখন ঘোষণা করা হলো, স্তম্ভিত হয়ে গেলাম। তালিকাদৃষ্টে কবি শামসুর রাহমান নন জীবিত শ্রেষ্ঠ এক বাঙালি। পাকিস্তানের কাল থেকে ছায়ানটের নেতৃত্বে সনজিদা খাতুন, ওয়াহিদুল হক যে ভয়াবহ বিরূপ পরিস্থিতির ভেতরে তখন ও আজও যে বাঙালিকে আত্মপরিচয়ে ফিরিয়ে আনার জন্য কাজ করেছেন ও করছেন, তাঁরও নন শ্রেষ্ঠ বাঙালি! মনোনয়ন পাননি তাঁরাও। জ্যেতি বসুও সারাজীবন বাঙালির  আর মেহনতি মানুষের লাল পতাকাটি এত সমর্থ হাতে তুলে ধরে  রেখেও ১০ বাংঙালির এক বাঙালি হতে পারলেন না! ...কাইয়ুম চৌধুরীর মতো চিত্রকর একজনও...।"

আজ টিভিতে অধ্যাপক আনিসুজ্জামান নামের লোকটাকে দেখে চোখ বন্ধ করে ভাবছিলাম, পাজামাপরা বয়স্ক একটা মানুষকে নগ্ন দেখতে ভাল লাগে না। এই মানুষগুলোই আমাদেরকে, এই প্রজন্মকে আলোর পথ দেখান। হরদম আমাদের মাথা সাফ করেন। ভুল বললাম, মাথায় আবর্জনা ভরে দেন। এমন করে!

শক্তিশালি মানুষদের অনেকে যেমন 'কু-শীল' পোষে তেমনি প্রথম আলোর মত শক্তিশালি পত্রিকাগুলোও আনিসুজ্জামানের মত সুশীল মানুষদের পোষে। কে না জানে, ছাপার অক্ষরে আমরা যা পড়ি তাই বিশ্বাস করি। শপথবাজ মতি ভাইয়ের প্রথম আলোর মত পত্রিকার সঙ্গে যখন যোগ হন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান মত মানুষেরা তখন আমাদের আর কে বাঁচাবে! মানে আর কে শেখাবে? এরা যা শেখাবেন আমরা তাই শিখব।
ভানবাজ এই সব মানুষেরা একের পর এক ভানের খেলা দেখিয়ে যান।

আমি এক লেখায় বলেছিলাম, আমাদের দেশের পাঁচটা শক্তিশালি পত্রিকা যদি স্থির করে, সমস্ত দেশের লোকজনকে এক চামচ ইয়ে খাওয়াব, আমরা তাই খাব। কারণ ওই পত্রিকাগুলোতে চামচ হাতে প্রস্তুত থাকবেন এই সব বিশিষ্টজন, আলোকিত মানুষেরা।

সহায়ক সূত্র:
১. আনিসুজ্জামানের শপথ...: http://www.ali-mahmed.com/2010/01/blog-post_03.html

No comments: