Thursday, January 19, 2012

bsf- এক নেকড়ের নাম!

­ভুবনেশ্বর নামে অসম্ভব শক্তিশালী একজন লেখকের অসাধারণ এক গল্প পড়েছিলাম [১], বাপ-বেটাকে নেকড়ে দৌড়াচ্ছে। বাপ যখন দেখলেন বাঁচার আর কোনো উপায় নেই তখন পা থেকে জুতো জোড়া ছেলেকে দিয়ে নেকড়ের মাঝখানে লাফিয়ে পড়লেন।
সোজা কথায় নেকড়ের হাত থেকে যখন বাঁচা যাবেই না তখন নেকড়ের হাতে নিজেকে তুলে দেয়াটাই শ্রেয়, ন্যূনতম সম্পদ বাঁচল এই পাওয়া।

আজ ভুবনেশ্বরের এই গল্পটা, নেকড়ের কথা কেন মনে পড়ল?
ফেলানীর ঝুলন্ত লাশ দেখে দেশ উত্তাল হয়ে উঠেছিল। আসলে বিএসএফ যা করে তার তুলনায় ফেলানীর ওই লাশ নস্যি। দুম করে গুলি করে দিল আর বেচারি ফেলানীর মৃত্যু হলো। অন্তত নরকযন্ত্রণা এই অভাগা মানুষটাকে পেতে হয়নি।

চোখে দেখতে পান না এমন মানুষদের সন্তানদের জন্য যে স্কুলটা চালাতাম সেই স্কুলটা ছিল সীমান্ত এলাকায়। অহরহ ওখানে আমার যাওয়া পড়ত।
আমি পেয়ারাকে 'গয়াম' বলা মানুষ- এই নিয়ে বাচ্চার মা কম হাসাহাসি করতে ছাড়েননি। তো, নাগরিক মানুষদের সঙ্গে ছাপার অক্ষরে কথা বলতে গিয়ে গোলমাল পাকিয়ে ফেলি কিন্তু গ্রামের সাদাসিধা মানুষদের বেলায় এই হুজ্জত নেই- আরাম করে কথা বলা যায়।
ওখানে বিভিন্ন মানুষদের সঙ্গে কথা বলার সুবাদে বিএসএফদের সম্বন্ধে যা শুনতাম, যেমন পায়ের রগ কেটে পানিতে ফেলে দেয়া, শরীরে পেট্রল পুশ করা যা রীতিমতো রোমহর্ষক। সব কথা আমি বিশ্বাস করতাম না। আমার ধারণা ছিল, এরা হয়তো বাড়িয়ে বলছেন কিন্তু পরে বিভিন্ন সূত্র, পত্র-পত্রিকা থেকে নিশ্চিত হয়েছিলাম।

আজ প্রথম আলোর এই প্রতিবেদন [২] পড়ে আবারও নেকড়ের কথা মনে পড়ল। ইউটিউবের যে ডিডিওটি আপলোড করেছেন masumindia. ওই ভিডিও থেকে কিছু স্থির ছবি:
...

*দুর্বলচিত্তের কাউকে আমি নিষেধ করব এই ভিডিওটি দেখার জন্য। 

masumindia থেকে এখানে ভিডিও-এর খানিক অংশবিশেষ। পুরো ভিডিও দেখা যাবে এখানে: masumindia: http://www.youtube.com/watch?v=CPDXmhZHP_8%20masumindia

এটা দেখার পর কোনো মানুষের পক্ষে সুস্থ থাকা সম্ভব না। মানুষটা যখন এদের পা জড়িয়ে মা-মা বলে চিৎকার করছিল তখন আমার কেবল মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল ইচ্ছামৃত্যু থাকলে বেশ হতো...

সহায়ক সূত্র:
১. নেকড়ে...: http://www.ali-mahmed.com/2009/10/blog-post.html
২. প্রথম আলো: http://www.eprothomalo.com/index.php?opt=view&page=1&date=2012-01-19

1 comment:

Mukit said...

ভাগিরথীর কথা আপনার ব্লগেই প্রথম পড়েছিলাম, শুভ ভাই।
হাবিবুরকে নির্যাতনের ভিডিওটা দেখতে দেখতে সেই ভাগিরথির কথা মনে পড়ে যাচ্ছিলো।
অদ্ভুত ব্যাপার, আপনার ব্লগে ভাগিরথি আর হাবিবুর এখন একই পাতায়!