Tuesday, September 27, 2011

জলেভাসা পদ্ম

­

গ্রাম-গ্রাম টাইপের একটা জায়গা। লোকজনেরা গোল হয়ে দাঁড়িয়ে। জিনিসটা বিক্রি হচ্ছে। ঝাঁকায় করে। কেউ-কেউ কিনেও নিচ্ছেন। পাঁচ টাকা পিস। যিনি বিক্রি করছেন তিনি বুঝিয়েও দিচ্ছেন কেমন করে খেতে হয়। আজকালকার লোকেরা অনেক বুদ্ধিমান। সাহস-বুদ্ধি করে সহজে কেউ খেতে চাচ্ছেন না। খেয়ে সমস্যা হয় যদি!

বিক্রেতা এটার নাম বলছিলেন পদ্মফল! ফলের নাম নিয়ে আমার নিজেরও ঘোর সন্দেহ ছিল!

নাগরিক একজন মানুষ, ডা. গুলজার হোসেন যখন নিশ্চিত করলেন এর নাম 'পদ্মফল' তখন অবাক হয়েছি বৈকি। তিনি যে কেবল এই ফলটা চেনেন এমনই না ঠোঁট উল্টে এও জানালেন, বালকবেলায় বিস্তর খেয়েছেন!
শুনে আমি একটা ধাক্কার মত খেয়েছি।
এমন একটা ফল লোকজন চিনতে পারলেন না কেন? শেকড়ের সাথে আমাদের যোগাযোগটা এমন বিচ্ছিন্ন হলো কেমন করে! এই দোষে আমি নিজেও দুষ্ট! এর পরিণাম যে শুভ হওয়ার কথা না এটা জানার জন্যে রকেটবিজ্ঞানি হওয়ার প্রয়োজন পড়ে না...।

*'জলেভাসা পদ্ম' এটা বিখ্যাত একটা গান থেকে নেয়া।
**কৃতজ্ঞতা: সমীর চক্রবর্তী। যার কারণে ফলটা দেখার জন্য আগ-বাড়িয়ে যাওয়া। 

4 comments:

Anonymous said...

http://fusionfactory.blogspot.com/2011/04/blog-post.html তবে কিছু পরিবর্তন নিশ্চয়ই আসে। যেমন গতবারের বিজয়ী আলী মাহমেদ ভালোই লিখতেন আগে, ডয়েচে ভেলের পুরস্কার জিতে আসার পর তিনি হয়ে উঠেছেন ঠেঙ্গামারা মহিলা সবুজ সংঘের (টিএমএসএস) অনলাইন ভার্সন। স্কুল-টিস্কুল করছেন শুনলাম, এতোদিনে ক্ষুদ্রঋণ বিতরণের দিকেও হয়তো ঝুঁকে থাকবেন।
ফিফার এই ল্যাকা দেখছিলেন শুভ ভাই? প্রথম আলোর অফিসে বইস্যা রবিরা নিজেগো খোসপাচড়া বাতাসে উড়ায় নাকি?

।আলী মাহমেদ। ali mahmed । said...

আহ, মহামতি ফিফা!

মহামতি ফিফার সমস্যাটা কোথায় আমি ধরতে পারছি না। মহামতি বলেছেন,"স্কুল-টিস্কুল করছেন শুনলাম..."।
মহামতিরা শুনতে থাকেন আর আমার মত সাধারণরা করে ফেলে, এই-ই পার্থক্য।

"আলী মাহমেদ ভালোই লিখতেন আগে..."
যা হোক, আগে ভাল লিখতাম মহামতির কাছ থেকে এই সার্টিফিকেট পেয়ে বড়ই আনন্দিত হলুম। @Anonymous

নুহান said...

http://www.bd-pratidin.com/?view=details&type=gold&data=News&pub_no=514&cat_id=3&menu_id=16&news_type_id=1&news_id=86151&archiev=yes&arch_date=02-10-2011

নুহান said...

Anonymous, ভুল করসেন।খোসপাচড়া রবি না উড়ায় সিমু নাসের হিঃহিঃহিঃ