Sunday, December 12, 2010

তথাকথিত পাগলের ডাক্তার

এই স্বাস্থ্য পত্রিকাটি দেখে আমি যারপর নাই মুগ্ধ! দেখেই মুগ্ধ, আপাতত পড়তে চাচ্ছি না। সমস্যা অন্যখানে, মুগ্ধতা চুইয়ে দেশে অকাল বন্য হয়ে যেতে পারে এই ভয়ে আপাতত পড়ার আগ্রহ দমিয়ে রেখেছি।
এদের বক্তব্য হচ্ছে, এটা নাকি বাংলা ভাষায় প্রথম মানসিক স্বাস্থ্য পত্রিকা! ভাল! এই বিষয়ে যারা দ্বিতীয় তৃতীয় স্থানে অবস্থান করছেন তারা আমার চেয়ে ভাল বলতে পারবেন।
পত্রিকার প্রচ্ছদে যে রোগীর ছবি ছাপা হয়েছে তিনি কি দন্ত রোগী নাকি মৃগীরোগী? চর্মরোগী বা আলঝেইমারসের রোগীও হতে পারেন। ওনার কি এনজিওগ্রাম করা হবে নাকি আনপ্ল্যান্ড প্রেগনেন্সির কোন চক্কর আছে? এই পত্রিকার সম্পাদক 'পরফেসর' ফিরোজ সাহেব এটা ভাল বলতে পারবেন কোন রোগে আক্রান্ত এই রোগীর মুখাবয়ব এখানে?

ওহো, বলতে ভুলে গেছি এই স্বাস্থ্য পত্রিকাটির সম্পাদক হচ্ছেন অধ্যাপক ডা. এ এইচ মোহাম্মদ ফিরোজ। পত্রিকাটির তথ্য মতে, বাংলাদেশ সরকার নাকি এই 'পরফেসর' সাহেবকে এই পত্রিকার সম্পাদক হিসাবে অনুমোদন দিয়েছে। বাংলাদেশ সরকার যে 'মনোজগত' নামের এমন একটা পত্রিকা চালায় আবার সরকার সেই পত্রিকার সম্পাদককে মনোয়নও দেয় এটাই কী আর আমি জানতাম ছাই! বয়স বাড়ছে, মেঘে মেঘে বেলা বয়ে যায়। বুকের গহীন থেকে হাহাকার বেরিয়ে আসে, কত অজানা রে...। পরফেসর ফিরোজ সাহেবদের মত কর্মবীরদের কথা না-জেনে মরে যাওয়াটা কোন কাজের কাজ না। 
এই সংখ্যায় প্রচ্ছদ রচনার নামে একটি লেখা লিখেছেন একজন। তিনি হচ্ছেন, মানসিক রোগ শিক্ষা, গবেষণা, চিকিৎসা ও জনসচেতনতায় পথিকৃৎ বাংলাদেশের বিশিষ্ট মনোশিক্ষাবিদ, মনোবিজ্ঞানী, মনোসাহিত্যিক ও মনোচিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ এইচ মোহাম্মদ ফিরোজ। আবার তিনি এই পত্রিকার সম্পাদকও! নিজের সম্পাদিত পত্রিকায় নিজেই লিখছেন, টাইটেলের ভারে সোজা হয়ে আপ্রাণ চেষ্টায় ঢোলটা পেটাতে পেটাতে ফাটিয়েও ফেলছেন, ভদ্রলোকের কত্তো-কত্তো কাজ!
এই কর্মবীরের জন্য গোটা জাতি গর্ভিত! (আমার লিখতে গিয়ে বানান ভুল হয় সেজন্য আগেভাগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। প্রবল আশা, অন্তত ৩ টাকা দামের কলমবাজ মনে করে মার্জনা করবেন।)

 'মনোজগত সেন্টার' নামের এই বৈজ্ঞানিক চিকিৎসা কেন্দ্রও কি সরকার চালান? বেশ-বেশ! ভাল কথা, 'পরফেসর' ফিরোজ সাহেব কি মনোজগত সেন্টারে সরকারের বেতনভুক্ত কর্মচারী? তা ডাক্তার সাহেবের ফি ৮০০ টাকা কেন? সরকারী চিকিৎসালয়ের ফি এত হবে কেন?
ওয়াল্লা, এখানে লেখা আছে দেখছি, 'পরফেসর' ফিরোজ সাহেব "তথাকথিত পাগল"-এর চিকিৎসা করেন? তথাকথিত পাগল? এটা কী জিনিস আবার? আর 'পরফেসর' ফিরোজ সাহেব কি তথাকথিত পাগলের ডাক্তার? নিজেই পাগলের চিকিৎসা করেন, নাকি নিজেই...?